9.1 C
New York
Sunday, April 18, 2021

জেনে নিন মশা তাড়ানোর ঘরোয়া উপায়

মশার উ;পদ্রব বাড়ছে লাগামহীনভাবে। বিরক্তিকর এই পতঙ্গের প্যানপ্যানানি এবং কা’মড়ের য’ন্ত্রণাও নাহয় সহ্য করা যায়, কিন্তু এর কারণে সৃষ্ট অসুখ-বিসুখ থেকে কীভাবে বাঁচবেন?

মশার কা’মড়ের কারণে যেসব অসুখ হতে পারে তার একটিও উড়িয়ে দেওয়ার মতো নয়। বরং কোনো কোনো অসুখে মৃ’ত্যু পর্যন্ত ঘটতে পারে। গরমের সময় এলে পাল্লা দিয়ে বাড়ে মশার উ’পদ্রব। বৃষ্টি হলে সেই পালে হাওয়া লাগে যেন। মশার য’ন্ত্রণায় তখন নিজের ঘরেই থাকা দায়।

মশারি টাঙিয়ে আর কতক্ষণ নিজেকে রক্ষা করা যায়! একে তো ম’হামারি করোনা ভাইরাসের আত’ঙ্ক, তার ওপর যোগ হয়েছে মশার অ’ত্যাচার। এসময়ে অতিরিক্ত সত’র্কতার কোনো বিকল্প নেই। জেনে নিন মশা তাড়ানোর ঘরোয়া উপায়:

পুদিনা পাতার ব্যবহারঃ পুদিনা পাতা ব্যবহার হয় নানারকম খাবার তৈরিতে। উপকারী এই পাতা আমাদের হজমশক্তি ভালো রাখতে সাহায্য করে। এটি কিন্তু মশা তাড়াতেও বেশ কার্যকরী। একটি গ্লাসে অল্প পানি নিয়ে তাতে পুদিনার কয়েকটি গাছ রেখে দিন খাবার টেবিলে।

তিনদিন পরপর পানি বদলে দেবেন। জার্নাল অফ বায়োরিসোর্স টেকনোলোজির গবেষণা বলছে, পুদিনা পাতা মশা দূরে রাখতে সাহায্য করে। মশা ছাড়াও আরও অনেক পোকা-মাকড় দূরে থাকে পুদিনার গন্ধে। পুদিনা পাতা সেদ্ধ করে সেই পানির গন্ধ পুরো ঘরে ছড়িয়ে দিন। এতেও মশা পালাবে।

হলুদ বাতিঃ আলোর প্রতি নানা রকম পতঙ্গের টান আছে এমনটাই জানি আমরা। কিন্তু আপনি জানেন কি, ঘরে হলুদ আলো জ্বাললে মশার উপদ্রব কমে?

বৈদ্যুতিক বাতির চারপাশে হলুদ সেলোফন জড়িয়ে দিতে পারেন। এতে আলোর রং হবে হলুদ। আর এই হলুদ আলোর কারণে মশা দূরে থাকবে। এই রঙের আলো প্রতি সন্ধ্যায় জ্বাললে মশার আ’ক্রমণ থেকে অনেকটাই মুক্তি মিলবে।

চা পাতার ব্যবহারঃ চা পাতা কী কাজে লাগে? প্রশ্ন শুনে অবাক হয়ে ভাবছেন, চা পাতা তো চা তৈরির কাজে লাগে! কিন্তু চা তৈরি ছাড়াও চা পাতার আছে আরও অনেক উপকারী ব্যবহার। তার মধ্যে একটি হলো মশার উপদ্রব কমানো।

সেজন্য আপনাকে যে কাজটি করতে হবে তা হলো, চা পাতা ব্যবহারের পর ফেলে না দিয়ে রোদে শুকিয়ে নিতে হবে। এমনভাবে শুকাবেন যেন তাতে পানি না থাকে। এরপর এই চা পাতা ধুনো হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। শুকনো চা পাতা পোড়ালে ঘরের সব মশা-মাছি দূর হবে দ্রুতই।

মশা তাড়াবে লেবু ও লবঙ্গঃ এই সহজ উপায় অনেকেরই অজানা। প্রথমে একটি বড় লেবু নিয়ে দুই ভাগ করে কেটে নিন। এর ভেতরের অংশে লবঙ্গ গেঁথে নিন অনেকগুলো। লবঙ্গের ফুলের অংশটুকু শুধু বের হয়ে থাকবে। বাকি অংশ লেবুর ভেতরে গেঁথে দিন। এবার লেবুর টুকরোগুলো একটি পরিষ্কার থালায় করে কক্ষের এককোণে রেখে দিন। এতে খুব সহজেই মশার উপদ্রব থেকে বাঁচতে পারবেন। লেবু ও লবঙ্গ এভাবে রেখে দিতে পারেন জানালার গ্রিলেও। এতে করে মশা ভেতরে ঢুকবে না।

ফুল স্পিডে ফ্যান চালু রাখুনঃ মশা ভীষণ হালকা একটি পতঙ্গ। তাই ঘরের সিলিং ফ্যানটি যদি ফুল স্পিডে ছেড়ে রাখেন তবে মশা আর কাছে ঘেঁষতে পারবে না। মশার ওড়ার গতিবেগের চেয়ে স্বাভাবিকভাবেই ফ্যানের ঘোরার গতি বেশি। তাই মশা সহজেই ফ্যানের ব্লেডের কাছে চলে যায়। মশার উ’পদ্রব বেড়ে গেলে ফুল স্পিডে ফ্যান ছেড়ে দিন।

Related Articles

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Stay Connected

21,790ভক্তমত
2,739অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
0গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

Latest Articles