20.5 C
New York
Wednesday, June 23, 2021

করোনা আ’ক্রান্ত হয়ে মা’রা গেছেন মনে করে মৃ’তদেহ ধরল না পরিবার, শেষকৃত্য করলেন মুসলিম যুবকরা

মহামারি করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভারত পুরোপুরি বিধ্ব’স্ত। করোনা ভাইরাসে আ’ক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিনই ছাড়িয়ে যাচ্ছে রেকর্ড।

এমন বিপর্য’স্ত অবস্থায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নজির গড়লেন বিহারের প্রদেশের একদল মুসলিম যুবক। করোনায় আ’ক্রান্ত হয়ে মা’রা গেছেন মনে করে এক নারীর মৃ’তদেহ ছুঁতে চায়নি তার পরিবারের সদস্যরা।

শেষপর্যন্ত ওই মুসলিম যুবকরাই রীতি মেনে ওই হিন্দু নারীর শেষকৃত্য সম্পন্ন করেন। ইতোমধ্যে ঘটনাটি ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ভারতীয় গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিন জানায়, বিহারের গয়া জেলার ইমামগঞ্জ পুলিশ স্টেশনের তেতারিয়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে।

সম্প্রতি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন প্রভাবতী দেবী নামে ৫৮ বছরের ওই নারী। তাকে তড়িঘড়ি একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আরটি-পিসিআর টেস্টও করা হয়। কিন্তু সেই রিপোর্ট নেগেটিভ আসলেও পরবর্তীতে চিকিৎসা চলাকালীনই মৃত্যু হয় ওই নারীর।

করোনাতেই মা’রা যান তিনি-এই ভয়ে ওই নারীর স্বামী এবং দুই ছেলে মৃতদে’হ নিতে রাজি হননি। ফলে দীর্ঘক্ষণ গাড়িতেই পড়েছিল মৃ’তদে’হটি। শেষপর্যন্ত খবর পেয়ে ওই নারীর শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে এগিয়ে আসেন মো. রফিক, মো. শারিক, মো. কালামি, মো. বারিক, মো. লাদ্দানসহ এলাকারই বেশ কয়েকজন মুসলিম যুবক।

শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে সহযোগিতাকারী শারিক বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণেই প্রভাবতী দেবীর মৃ’ত্যু হয়েছে-এ আ’শঙ্কায় এবং ভয়ে তার স্বামী বা দুই ছেলে কেউই মৃ’তদে’হ নিতে রাজি হননি। ফলে দুপুর ১২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত গাড়িতেই পড়েছিল তার মৃ’তদে’হ। শেষপর্যন্ত আমরা খবর পেয়ে সকালে সেখানে যাই।

আমরা কয়েকজন গাড়ি থেকে মৃতদেহটি নামাই। এরপর বাঁশ দিয়ে খাট তৈরি করে শবদেহটি নিয়ে শ্মশানের উদ্দেশে রওনা হই। এমন সম্প্রতির উদাহরণ সামনে আসার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অনেকেই ওই মুসলিম যুবকদের কাজের প্রশংসা করেছেন। সূত্রঃ সংবাদ প্রতিদিন

Related Articles

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Stay Connected

21,984ভক্তমত
2,828অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
0গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব

Latest Articles